বর্তমানে বিদেশ যাত্রা বা বিদেশ ভ্রমণ সম্পর্কে জেনে নিন - বাংলা ট্রাভেল টিপস

বর্তমানে বিদেশ যাত্রা বা বিদেশ ভ্রমণ সম্পর্কে জেনে নিন - বাংলা ট্রাভেল টিপস


বর্তমানে বিদেশ যাত্রা নিয়ে অনেকের অনেক সংশয় আছে। আমরা এখন বর্তমানে অনেকে হয়তো বিদেশযাত্রা করতে যাচ্ছি বা বিদেশে যেতে চাচ্ছি। সেটা কাজের জন্য ভ্রমণের জন্য হোক বা যেকোন প্রয়োজনে হোক না কেন আমরা বর্তমানে অনেকে বিদেশ যাওয়ার প্লানিং করে রেখেছে। তবে বর্তমানে করোনাভাইরাস এর মধ্যে আমরা যদি বিদেশ যাত্রা নিউ প্লান করে থাকে। বিদেশে যেতে চাই বিদেশে যাওয়ার প্রয়োজন পড়ে। তখন আমাদের বাড়তি কিছু প্লান করতে হবে। বাড়তি কিছু সচেতনতা প্রয়োজন সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত অথবা কিছু দিক নির্দেশনা মানা উচিত সেগুলো অবশ্যই আপনাকে মেনে চলতে হবে। আপনি যদি বর্তমানে বিদেশ যাত্রা করতে চান। 


বর্তমানে অনেক দেশেই বিদেশযাত্রা নিষেধাজ্ঞা করে দিয়েছে। বিদেশে যেতে দিবে না বা তাদের দেশে যাওয়া নিয়ে সাময়িকভাবে কিছু সময় বন্ধ রাখা হয়েছে যে এই সময়ের মাঝে থেকে এত তারিখের মধ্যে বা অনির্দিষ্টকালের জন্য তাদের দেশে প্রবেশ বন্ধ রাখা হয়েছে। এরকম কিছু দেশ তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।


হ্যাঁ আপনি যদি ঐ সমস্ত দেশগুলোতে দেশগুলোতে যান বা যাওয়ার সম্ভাবনা আছে বা যেতে চান যে সমস্ত দেশ গুলো তাদের দেশে প্রবাসী প্রবেশ বন্ধ রেখেছে। তাহলেতো আপনি যেতে পারবেন না। এটি নিষেধ আছে সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই খোঁজখবর নিয়ে রাখতে হবে যে আপনি যে দেশে যেতে চান সে দেশে কি এখন কোন প্রবেশে বাধা আছে কি না

 যদি থাকে তাহলে আপনি এখনো প্রদত্ত আপনার কাজ ওই দেশে যাওয়া টা বন্ধ রাখতে পারেন। পারতে হবে কিছু তো করার নেই কারণ আপনি চাইলেও জোর করে সেখানে যেতে পারব না। যেহেতু সেখানে প্রবেশে বাধা আছে তা আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে।


যখন আবার প্রবেশ স্বাভাবিক ভাবে ছেড়ে দেওয়া হবে অর্থাৎ যখন প্রবেশের কোনো রকম বাধা থাকবে না। যখন প্রবাসী যারা তাদের দেশে যাবে সেখানে কোনো রকম বাধা সৃষ্টি হবে না। তখন আপনি যেতে পারেন কোন সমস্যা তখন আর থাকবেনা প্রবেশ নিয়ে।


এছাড়া আপনি যে দেশে যাবেন সে দেশে যদি বর্তমানে কোন রকম প্রবেশ বাধা না থাকে। তাহলে তো আপনি যেতে পারেন এতে করে প্রবেশ বাবা ইমিগ্রেশন যে সমস্ত প্রসেস সেগুলো তো হবেই মোটামুটি প্রবেশে বাধা থাকবে না। এরকম খোঁজখবর নিতে হবে যে প্রবেশে বাধা নেই যদিও কোনো রকম বাধা না থাকে। তাহলে আপনি আপনার যাওয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে পারেন আপনি যাওয়ার প্রস্তুতি নিতে পারেন।


আপনি যে দেশে ভ্রমণে যাবেন বাজ কাজে যাবেন বা প্রবাসী হোক যেই হোক না কেন আপনি যাবেন এদের সেখানে কোনো রকম বাধা না থাকে প্রবেশে। তাহলে আপনি সেখানে যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে নিবেন সেখানে যাওয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবেন। আর যদি সেখানে ভালো থাকে তাহলে আপাতত আপনার প্রচেষ্টা বা বিভিন্ন প্রক্রিয়া গুলো বন্ধ রেখে। যখন আবার প্রবেশে বাধা উঠিয়ে নেবে। তারা তখন আপনি আপনার প্রচেষ্টা বা প্রসেস গুলো আবার চালিয়ে যাবেন এবং আপনি আপনার গন্তব্য দেশে যাবেন বা যাওয়ার চেষ্টা করবেন।


এছাড়া বর্তমানে বিদেশ ভ্রমণে কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হয়। অনেক দেশেই আছে বা কিছু কিছু দেশ আছে যেখানে আপনি যদি তাদের দেশে যান তাহলে আপনাকে অবশ্যই সাত দিন অথবা চোদ্দবার একটি নির্দিষ্ট সময়ে হোম কোয়ারেন্টাইন হোস্টেল কোয়ারেন্টাইন থাকতে হয়। এক্ষেত্রে কোয়ারেন্টাইন এ থাকার জন্য যে অর্থ লাগে সেটা আপনাকে অনেক ক্ষেত্রে বহন করতে হয়।


আপনি যদি বর্তমানে বিদেশ যাত্রা করতে চান বা বিদেশযাত্রার করা লাগে তার আপনি কোয়ারেন্টাইন এর বিষয়টা মাথায় রাখবেন। অর্থাৎ আপনার যে সমস্ত প্লান আছে প্রক্রিয়া আছে সবগুলোর মধ্যে প্রাণের মধ্যে আপনি আপনার কোয়ারেন্টাইন এর সময় ডেকে দিবে সেটা আপনি যে দেশে যাবেন। সে দেশে কত দিনের কোয়ারেন্টাইন এ রাখা হয় সেটা অবশ্যই আগে জেনে নেওয়া ভালো। এতে করে আপনি আপনার প্ল্যান টা ভালোভাবে কাজে লাগাতে পারবেন ভালো লাগে হবে। আপনার কোন হঠাৎ করে কোন রকম সমস্যা আছে সেটি হবে না। যদি আপনি কি জানেন যে আপনি কতদিন কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হবে।


আপনি যদি না জেনে চলে যান যে সেখানে কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হবে কিনা সেটা না জেনে আপনি সে দেশে চলে গেলেন তখন দেখা যায়। সেখানে আপনাকে করেন ট্রেনে থাকতে হবে এতে করে আপনার মাঝে একটা বিবৃতি সৃষ্টি হলো সেটা যাতে না সৃষ্টি হয় এজন্য আপনি আগে থেকেই জেনে যাবেন। যে সে দেশে কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হবে কিনা বা থাকলেও কতদিন বা কত সময় করেন ট্রেনের ধাক্কা লাগে আপনাকে বিব্রত হতে হবে না। যদি আপনি জেনে শুনে জান।


এছাড়াও বর্তমানে বিদেশ যাত্রাটা অনেক রকম নিয়ম সৃষ্টি হয়েছে অনেক রং সাবধানতা অবলম্বন করতে হয়। অনেক রকম আমাদেরকে প্রসেসগুলো করতে হয় অনেক কিছু আমাদেরকে মানতে হয়। যেহেতু বর্তমানে করোনাভাইরাস এর জন্য আমাদেরকে অনেক বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে। অনেক কিছু আমাদের সাবধানতা থাকতে হয় অনেক কিছু আমাদেরকে গুরুত্ব সহকারে দেখতে হয়। যেগুলো হয়তো কিছুটা আগে ছিল না বর্তমানে কিছু কিছু বিষয়গুলো সংযোজন হতে পারে।


 তবে আপনি অবশ্যই আপনার পরিচিত জন যারা ভাল জানে তাদের সাথে আপনি যোগাযোগ করে যাবেন। এতে করে আপনার বিদেশযাত্রা বিদেশ ভ্রমণে বিদেশের কাজে কোন রকম সমস্যা নাও হতে পারে বা হলো তেমন জটিলতা হবে না। আপনি আপনার সমস্যাটা খুব সহজে সমাধান করে নিতেও পারবেন বলে আশা করা যায়।

Post a Comment

Previous Post Next Post